Bangladeshi All Job News updates 2020

Bangladeshi All Job News updates 2020, Bangladeshi all of the Job related notice updates you can see here. We try to give latest and faithful news here. We collect it in Bangladeshi many online jobs portal so you can faith our news.

Stay with us to get here latest job and exam related all of the notice updates, Of feel any problem can mail us.

Bangladeshi All Job News updates 2020

PSC, JSC, SSC, HSC, National University and all job exam results we publish on our website resultpediabd.com. All Job circular and exam result every visitor can get here easily and faster than any other site. Our result pedia bd team always gives here a great service for you so don’t miss our service. 

Bangladeshi every job applicant cannot find out their job exam information so we give them an extra possibility for it. Warmly wishing welcome every visitor on our site resultpediabd.com and try to solve every problem of Bangladeshi regular job applicants. 

See the circular below, to zoom the picture by use your fingers

চাকরির সকল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ইমেইলে পেতে আমাদের ইমেইলে মেইল করুন= sa4745303@gmail.com

Bangladeshi All Job News updates 2020

Bangladeshi All Job News updates 2020

 

বাংলাদেশে এ বছর খুলছে না স্কুল, পরবর্তী ক্লাশে উত্তীর্ণ হবার জন্য অ্যাসাইনমেন্টভিত্তিক মূল্যায়ন হবে শিক্ষার্থীদের।
 
এজন্য এক মাসের জন্য একটি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করে তার ওপর হবে এই মূল্যায়ন।
 
শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি আজ (বুধবার) এক সংবাদ সম্মেলন করে একথা জানিয়েছন।।
 
তিনি বলেছেন, স্কুল কর্তৃপক্ষ অনলাইনে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট পাঠিয়ে দেবেন, এবং এরপর অনলাইনে কিংবা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্কুলে গিয়েও উত্তর জমা দেয়া যাবে।
 
শিক্ষামন্ত্রী এও বলছেন, বছর শেষে পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হওয়ার ক্ষেত্রে এই অ্যাসাইনমেন্টের উত্তরপত্রের মূল্যায়ন কোন প্রভাব ফেলবে না।
 
পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত মাধ্যমিক পর্যায়ে এভাবেই শিক্ষা কার্যক্রম চলবে বলে জানিয়েছেন দীপু মনি।
 
বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সরকার সবার আগে যে পদক্ষেপ নিয়েছিল সেটি হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা।
 
এ কারণে গত ১৭ই মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে, এবং অক্টোবরের ৩১ তারিখ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়িয়েছে সরকার।
 
এর আগে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে পঞ্চম শ্রেণির প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা পিইসি, অষ্টম শ্রেণির জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা এবং সর্বশেষ এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।
 
ইতিমধ্যে প্রাক-প্রাথমিক থেকে চতুর্থ শ্রেণি পর্যন্ত নিজ নিজ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়নের ভিত্তিতে পরবর্তী শ্রেণীতে প্রমোশন দিতে বলেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।
 
সিলেবাসে কী থাকবে
শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, ৩০ কর্মদিবসে শেষ করা যায় এমন একটি সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে প্রতিটি শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য।
 
এটি মূলত হবে প্রতিটি ক্লাসে পুরো বছরের জন্য যে সিলেবাস তৈরি করা হয়, তার একটি সংক্ষিপ্ত সংস্করণ।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এই সিলেবাস দেয়া হবে। একই সঙ্গে সব স্কুল প্রধানদের কাছেও তা পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দীপু মনি।
 
মূল্যায়ন কীভাবে হবে
 
ওই সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ওপর ভিত্তি করে চার সপ্তাহে চারটি অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান করা হবে, এবং তার উত্তর সংগ্রহ করা হবে।
 
এক্ষেত্রে অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান করা হবে অনলাইনে, এবং উত্তর অনলাইনে জমা দেয়া যাবে।
 
একই সাথে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্কুলে গিয়েও অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে পারবেন।
 
এবং একটি অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেবার পর পরবর্তী অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করা যাবে।
 
তবে এই মূল্যায়ন পরবর্তী ক্লাসে উত্তীর্ণ হওয়ার ক্ষেত্রে কোন প্রভাব ফেলবে না। মূল্যায়ন যেন ‘শিক্ষার্থীদের ওপর চাপ সৃষ্টি’ না করে সে বিষয়টি সম্পর্কে কর্তৃপক্ষ সচেতন থাকবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।
 
“এটি (মূল্যায়ন) কেবল আমাদের (কর্তৃপক্ষের) বোঝার জন্য যে শিক্ষার্থীর কোন বিষয়ে দুর্বলতা আছে, যাতে পরবর্তী শিক্ষাবর্ষে ওই বিষয়ে বাড়তি নজর দেয়া যায়, যত্ন নেয়া যায়, সেজন্য।”
 
পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এভাবেই মাধ্যমিকের পাঠ কার্যক্রম চলবে।
 
স্কুল খুলবে কবে?
 
স্কুল কবে খুলবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোন ঘোষণা দেননি শিক্ষামন্ত্রী।
 
তবে মূল্যায়ন পদ্ধতির মাধ্যমে পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হওয়ার ঘোষণা আসায় ধরে নেয়া হচ্ছে এ বছর স্কুল খুলছে না।
 
এর মানে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট প্রদান এবং সংগ্রহ প্রক্রিয়ার জন্য স্কুল খোলা থাকলেও পাঠদান কার্যক্রমের জন্য আপাতত স্কুল খুলছে না।
 
সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী উল্লেখ করেন, অ্যাইনমেন্টভিত্তিক মূল্যায়ন পদ্ধতি পরবর্তী ঘোষণা না আসা পর্যন্ত চলবে।
 
স্থানান্তরিত হওয়া শিক্ষার্থীদের কী হবে?
কোভিডের কারণে অনেক পরিবার হয়ত এক জায়গা থেকে অন্যত্র স্থানান্তরিত হয়েছেন, সেই সব পরিবারের শিক্ষার্থীদের পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য শিক্ষামন্ত্রী বিশেষ ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন।
 
তিনি বলেছেন, “এক হচ্ছে অ্যাসাইনমেন্টগুলো ওয়েবসাইটে ও টেলিভিশনে পাবেন, সুতরাং সেখান থেকে নিয়ে শিক্ষার্থী বা তাদের অভিভাবকেরা স্কুলে জমা দিতে পারবেন।
 
অথবা বর্তমান আবাসস্থলের কাছের মাধ্যমিক স্কুলটিতে গিয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধানের সঙ্গে যোগাযোগ করে সিলেবাস এবং অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করতে পারবেন।”
 
এবং অ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করে সেই প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে পারবেন।

 

 

 

কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১২৬০৭টি পদ রাজস্ব খাতে সৃজন

Bangladeshi All Job News updates 2020

 

 

টেকনিক্যাল কলেজ ও পলিটেকনিকে ১২ হাজার ৬০০ পদে নিয়োগ হচ্ছে

দেশে কর্মমুখী শিক্ষার প্রসারে টেকনিক্যাল কলেজ ও পলিটেকনিকগুলোতে তিন অর্থবছরে প্রায় ১২ হাজার ৬০০ পদে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

কারিগরি শিক্ষা খাতে ১ হাজার ৬১টি ক্যাডার পদ এবং ১১ হাজার ৫৪৬টি নন-ক্যাডার পদসহ মোট ১২ হাজার ৬০৭টি পদ সৃষ্টির সরকারি আদেশ জারির জন্য প্রয়োজনীয় সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রের তথ্যমতে, সম্প্রতি এই প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মতি দিয়েছেন।

কর্মকর্তারা জানান, এর লক্ষ্য হল কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অধীনে ১১৩টি সরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৪৯টি পলিটেকনিক এবং ৬৪টি টেকনিক্যাল কলেজের জনবলের ঘাটতি সমাধান করা।

১ হাজার ৬১টি স্থায়ী ক্যাডার পদের মধ্যে ২০ জন উপাধ্যক্ষ (জাতীয় বেতন-স্কেল, ২০১৫-এ গ্রেড-৫), ১৬৯ জন চিফ ইনস্ট্রাক্টর (টেকনিক্যাল, গ্রেড-৬), ৫৭ জন চিফ ইনস্ট্রাক্টর (নন-টেকনিক্যাল, গ্রেড-৬), ৫১০ জন ইনস্ট্রাক্টর (টেকনিক্যাল, গ্রেড-৯) এবং ৩০৫ ইনস্ট্রাক্টর (নন-টেকনিক্যাল, গ্রেড-৯)।

চলতি অর্থবছর থেকে তিন অর্থবছরে ১২ হাজারেরও বেশি পদে নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানান কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. মো. ওমর ফারুক।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজগুলোতে বর্তমানে এক তৃতীয়াংশ কর্মচারী দ্বারা পরিচালিত তীব্র জনবল সঙ্কটের সমাধানের জন্য সরকার এই পদ সৃষ্টি করছে। নিয়োগের পরে শিক্ষার মান ও তালিকাভুক্তির হার বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, এই পদক্ষেপটি দেশে ও বিদেশে বর্তমান চাকরির বাজারের জন্য দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে কারিগরি ও ভোকেশনাল শিক্ষার উন্নয়নের জন্য সরকারের অগ্রাধিকারের অংশ হিসেবে রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা জানান, বিদেশে দক্ষ শ্রমিকদের উচ্চ চাহিদা থাকায় চাকরিমুখী শিক্ষার এই উদ্যোগটি বাংলাদেশি কর্মীদের বিদেশে পাঠানোর ক্ষেত্রে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

এর আগে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ১৩ হাজার ৭২টি পদ তৈরির প্রস্তাব অনুমোদন করে। পরে অর্থ বিভাগ রাজস্ব খাতে ১২ হাজার ৬০৭টি পদ সৃষ্টিতে সম্মত হয়। অর্থ বিভাগ পদগুলোর বেতন স্কেল নির্ধারণ করেছে।

 

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ছুটি আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে গতকাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো বিষয়ে ডা. দীপু মনি বলেন, ‘বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। তাই আগামী ৩ অক্টোবরের পরও ছুটি বাড়ছে। কত দিন ছুটি বাড়ছে, সেটা আমরা জানিয়ে দেব। তবে ধাপে ধাপে ছুটি বাড়ানো ছাড়া অন্য কোনো যৌক্তিক পদ্ধতি আমাদের কাছে নেই।’

কবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে পারে, সে ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় আগে খোলার বিষয়টি বিবেচনায় রেখে আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব। আমরা শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধির ব্যাপারটি বিবেচনা করব। আবার শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবনের কথাও বিবেচনা করব, তবে কোনো অবস্থাতেই আমরা শিক্ষার্থীদের ঝুঁকির মধ্যে ফেলতে পারি না।’

 

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের বাংলা নতুন সিলেবাস

এইচএসসি পরীক্ষার সম্ভাব্য সময়

সুত্রঃ সময় নিউজ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে চলতি বছরের সব ধরনের শিক্ষা কার্যক্রম পিছিয়ে পড়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকায় বার্ষিক পরীক্ষা ও বোর্ড পরীক্ষাও নেয়া সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় সবচেয়ে দুশ্চিন্তায় উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষার্থীরা। এই শ্রেণিতে বর্তমান পরীক্ষার্থী সংখ্যা রয়েছে প্রায় ১৩ লাখ।

করোনার মধ্যে বিভিন্ন দেশে অটো পাস করানোর নজির দেখা গেছে। কোনো কোনো দেশে অনলাইনে পরীক্ষার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের গুজরাটে পূর্ববর্তী পরীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী বর্তমান শ্রেণির ফলাফল ঘোষণা করে অটো পাস করানো হয়েছে।

তবে বিগত ছয় মাসে বাংলাদেশে এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। ফলে নানা রকম খবর ডাল-পালা ছড়িয়েছে। কখনো করোনার মধ্যে পরীক্ষা নয়, আবার কখনো পরীক্ষার ১৫ দিন আগে নোটিশ দেয়ার কথা বলা হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে করোনার মধ্যে এইচএসসি পরীক্ষা না নিতে একজোট হয়েছে বহু শিক্ষার্থী। সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে তারা ‘করোনার মধ্যে এইচএসসি নয়’ ব্যানারে গ্রুপও করেছে। সেখানে প্রায় ৩ লাখ সদস্য হয়েছে।

তবে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকার প্রায় ছয় মাস পর এইচএসসি পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম নিয়ে এক অনলাইন মতবিনিময় সভায় মন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হবে। রুটিন প্রকাশের পর চার সপ্তাহের মতো সময় দেয়া হবে পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়ার। এছাড়া সিলেবাস না কমিয়েই এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে।

মন্ত্রীর দেয়া তথ্য মতে, আগামী সোমবার বা মঙ্গলবার জানিয়ে দেওয়া হবে কবে পরীক্ষা শুরু হবে। রুটিন প্রকাশের এ এক সপ্তাহ ও পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য প্রায় চার সপ্তাহ সময়ের হিসেবে আগামী নভেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পরীক্ষা শুরু হতে পারে। তবে পরীক্ষা না নেওয়া সম্ভব হলে বিকল্প ভাবনাও রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার সব প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। কারণ, পরীক্ষার আগ মুহূর্তে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে। আমাদের প্রশ্নও তৈরি আছে। কিন্তু ১৪ লাখ পরীক্ষার্থীর সঙ্গে একজন করে অভিভাবক কেন্দ্রে গেলেও শিক্ষকসহ ২৫ থেকে ৩০ লাখ লোকের সম্পৃক্ততা থাকে। যারা অধিকাংশই গণপরিবহন ব্যবহার করবে। সেজন্য আমরা এখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারিনি।’

শিক্ষামন্ত্রী জানান, এইচএসসির বিষয়ে কী কী পদক্ষেপ নেওয়া যায় সবকিছু আমরা ঠিক করেছি। আগামী সোম ও মঙ্গলবারের মধ্যে পরিপূর্ণ পরিকল্পনা তারিখসহ ঘোষণা করতে পারবো। কতটুকু পরীক্ষা নেবো, কী পদ্ধতিতে নেবো সেটি সেদিন জানাতে পারবো। তবে পরীক্ষার্থীদের আমরা অন্তত চার সপ্তাহ সময় দেবো। চেষ্টা করবো দ্রুততম সময়ের মধ্যে কত নাম্বারের মধ্যে পরীক্ষা নিয়ে এটি সম্পন্ন করতে পারি। আর জেএসসি পরীক্ষার ফলাফলও আমরা মূল্যায়নে নিয়ে আসতে পারি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘শীতে করোনার সেকেন্ড ওয়েব আসতে পারে, সেটিও আমরা মাথায় রেখেছি। তবে কেউ কেউ নাকি পরীক্ষা ছাড়াই মূল্যায়ন চাইছেন। সেক্ষেত্রে আমরা সেটি নাকচ করছি না। কারণ, সব চেষ্টার পরও পরীক্ষা নেওয়া গেলো না, তাহলে কি আমাদের শিক্ষার্থীরা এগিয়ে যাবে না? সেক্ষেত্রে পরীক্ষা ছাড়া মূল্যায়নের সম্ভাবনা থেকেই যাচ্ছে, আমাদের সেটিও ভাবতে হবে।’

অনুষ্ঠানে শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের বিষয় এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা না খোলার বিষয়ে জনমতের গুরুত্ব উল্লেখ করেন। এ সময় জনমত সৃষ্টিতে গণমাধ্যমের সহযোগিতাও চান।

এই সভায় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহাবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক।

 

 

৩ অক্টোবরের পরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়বে : শিক্ষামন্ত্রী

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

৩ অক্টোবরের পরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়বে : শিক্ষামন্ত্রী

আগামী ৩ অক্টোবরের পরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ছে। তবে কত দিন ছুটি বাড়ছে সেটা আমরা জানিয়ে দেব বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

আজ বুধবার দুপুরে অনলাইনে জুম মিটিংয়ে শিক্ষা বিটের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি একথা বলেন।

সভার শুরুতে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা খোলামেলাভাবে শিক্ষা বিষয়ক প্রতিবেদকদের কাছ থেকে বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ নেব।

এ সময় তিনি বলেন, আগামী সপ্তাহের সোম-মঙ্গলবারের মধ্যে পরিকল্পনা ও তারিখসহ ঘোষণা (এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে) করতে পারবো।  চার সপ্তাহ সময় দিয়ে পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করবো। এ নিয়ে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই।

এতে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, আন্তশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক এই সভায় যুক্ত ছিলেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন জানান, ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা আছে। এর পর কী হবে বৃহস্পতিবারের মধ্যে সেই সিদ্ধান্ত মিডিয়াকে জানাতে হবে। বৃহস্পতিবারের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত জানানোর বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে বলেও জানান সচিব মাহবুব।

 

 

We always try to give here a clear image so it gives you a great reading quality. Result pedia bd in one of the most popular sites of Bangladesh for job circular and exam results.

we always post here a clear image and the applicant can save it easily by our site. Stay with us and visit regularly for the news update. the applicant needs a great preparation for this job, the job exam will be held a few months later.

 

Job latest news 2020

We warmly wishing welcome every visitor to our site to stay with us for the news update.

Job circular, job exam date, admit card download link and important news, we remain it’s very essential for you so if you remain this site help you broadly can visit here for the news update. For more information about any job circular in Bangladesh, you can 

contact us on the Facebook group or Twitter. Our admin always stays with you to solve this problem.

 

Job-related content writing and information is more important for applicants cause it helps to understand the job circular easily so we can say this way we are the best in Bangladesh.

Candidates can easily find out their essential information in the upper search icon on our site. Result pedia bd always fast for your consideration.

Never try to copy us cause our all content has copyrights so anybody copies our text and uses it his own site we warning them another way we case against them so be careful. 

At present we see some site copy our text and use it in his own site we already warning them if they don’t obey our warning we take a step against them

 

If any job circular takes the apply by the online system we give the link here in up of the post so easily get the link here. You can go to the site then fill up the site with your essential education and Bio-data related information. 

Here have a condition when you set your picture and signature here you just need to size your image 300*300 and signature size 300*80 to online apply.